‘মাদক ও সন্ত্রাসবিরোধী কাজে যুবলীগ-ছাত্রলীগকে এগিয়ে আসতে হবে’ | সংবাদ

1

স্টাফ রিপোর্টার: বিশ্বনাথ উপজেলায় মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গি প্রতিরোধে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য দেন মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিনদেশের বর্তমান প্রেক্ষাপট নিয়ে সিলেটের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন বলেছেন, রাস্তায় স্কুলছাত্রীকে উত্ত্যক্ত, শিশুদের শারীরিক নির্যাতন, মাদক, সন্ত্রাস আর জঙ্গি প্রতিরোধী কাজে যুবলীগ-ছাত্রলীগকেও এগিয়ে আসতে হবে।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন দেশ থেকে এসব সমাজ বিরোধী কাজ নির্মূল করতে হবে। তাই পুলিশের পাশাপাশি যুবলীগ ও ছাত্রলীগকে এগিয়ে আসতে হবে।
বৃহস্পতিবার বিকালে সিলেটের বিশ্বনাথ উপজেলায় মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গি প্রতিরোধে এক মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মোহাম্মদ ফরিদ উদ্দিন এসব কথা বলেন।
তিনি আরও বলেন, এ দেশের পুলিশ হতে হবে লন্ডনের পুলিশের মতো। মানুষ যাতে ন্যায় বিচার পায় এমন কাজ করতে হবে। নির্যাতিত মানুষ থানায় গিয়ে যেন ন্যায়বিচার পায়। থানায় জিডি করতে গেলেও কোনো প্রকার বাহানা চলবে না। সঙ্গে সঙ্গে তার জিডি করে দেয়ার জন্য থানার ওসিকে নির্দেশ দেন।
বিশ্বনাথ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) দোলাল আকন্দের পরিচালনায় সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন উপজেলা চেয়ারম্যান এসএম নুনু মিয়া, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাশেদুল হক, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার লুৎফুর রহমান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অমিতাভ পরাগ তালুকদার, সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম, ভাইস চেয়ারম্যান হাবিবুর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান আমির আলী, অ্যাডভোকেট আলমগীর হোসেন, যুবলীগ নেতা আলতাব হোসেন, সাংবাদিক কাজী জামাল উদ্দিন, মোসাদ্দিক হোসেন সাজুল, সাইফুল ইসলাম বেগ ও সংগঠক ফজল খান।
শুরুতে স্বাগত বক্তব্য রাখেন থানার ওসি শামসুদ্দোহা। এসময় আরও বক্তব্য রাখেন মুহিত চৌধুরী, সমরেন্দ্র বৈদ্য, সিতার মিয়া, শাহ আলম খোকন, জয়নাল আবেদীন, নবীন সুহেল, জয়নাল মিয়া, হাবিবুরহমান হাবিব, শিতল বৈদ্য ও পার্থ সারতী দাস পাপ্পু। সূত্র যুগান্তর