Home | প্রবাস | সাধারণ ক্ষমায় আমিরাতে বৈধ হয়েছেন ৪৫ হাজার বাংলাদেশি|নিউজ

সাধারণ ক্ষমায় আমিরাতে বৈধ হয়েছেন ৪৫ হাজার বাংলাদেশি|নিউজ

ডেস্ক রিপোর্টার :

সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ঘোষিত সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ দীর্ঘ পাঁচ মাস পর (৩১ ডিসেম্বব) শেষ হয়েছে। এই পাঁচ মাসে আমিরাতে প্রায় ৪৫ হাজার অবৈধ বাংলাদেশি বৈধ হয়েছেন।

দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ডাক্তার মোহাম্মদ ইমরান সোমবার (৩১ ডিসেম্বর) সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

ইমরান বলেন, ‘মাত্র ৫ মাসের মধ্যে নিয়মিত পাসপোর্ট প্রত্যাশী ছাড়াও অবৈধ প্রায় ৪৫ হাজার বাংলাদেশির জন্য এটা একটা কঠিন চ্যালেঞ্জ ছিল। তবে প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়, পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়, দূতাবাস ও কনস্যুলেটের সকল কর্মকর্তার আন্তরিক সহযোগিতায় এই বিশাল কাজ আমরা সম্পন্ন করেছি।’

তিনি বলেন, ‘প্রায় ৪৫ হাজার প্রবাসী ইতোমধ্যে ৬ মাসের জব সিকার ভিসা পেয়েছে। এবং যারা ৬ মাসের জব সিকার ভিসা পেয়েছেন তারা যতদ্রুত সম্ভব কাজের ভিসা লাগান। ইতোমধ্যে সাধারণ ক্ষমার সুযোগ গ্রহণ করে আউট পাশ নিয়ে অনেক প্রবাসী দেশে চলে গেছেন।

উল্লেখ্য গত ১ আগস্ট থেকে প্রথমে তিন মাসের ও পরে আরো দুই মাস সময় বৃদ্ধি করে মোট ৫ মাসের সাধারণ ক্ষমার সুযোগ দিয়েছিল আরব আমিরাত সরকার। এ সময় রাষ্ট্রদূত আমিরাতে অবৈধ অভিবাসীদের ভিসা ট্রান্সফার উন্মুক্ত করার কথাটি উল্লেখ করেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন দূতাবাসের প্রথম সচিব রিয়াজুল হক ও প্রথম সচিব মুহাম্মদ জোবায়েদ হোসেন। আমিরাত বাংলাদেশ প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মুহাম্মদ মোরশেদ আলমসহ সাংবাদিক নেতারা।

গত ১ আগস্ট থেকে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ ছিল। এ সময়ের মধ্যে অবৈধ প্রবাসীদের আবেদন করতে বলা হয়। দ্বিতীয় দফায় ১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ক্ষমার মেয়াদ বাড়ানো হয়।

এমআরএম/এমকেএইচ

About admin

Check Also

সাধারণ ক্ষমায় আমিরাতে বৈধ হয়েছেন ৪৫ হাজার বাংলাদেশি|নিউজ

ডেস্ক রিপোর্টার : সংযুক্ত আরব আমিরাতে অবৈধ অভিবাসীদের জন্য ঘোষিত সাধারণ ক্ষমার মেয়াদ দীর্ঘ পাঁচ মাস পর (৩১ ডিসেম্বব) শেষ হয়েছে। এই পাঁচ মাসে আমিরাতে প্রায় ৪৫ হাজার অবৈধ বাংলাদেশি বৈধ হয়েছেন। দেশটিতে নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত ডাক্তার মোহাম্মদ ইমরান সোমবার (৩১ ডিসেম্বর) সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। ইমরান বলেন, ‘মাত্র ৫ মাসের মধ্যে নিয়মিত পাসপোর্ট প্রত্যাশী ছাড়াও অবৈধ প্রায়

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *