Home | রাজনীতি | পাঁচ বছরে এতটাই সফল হব, যা মানুষ কল্পনাও করেনি |নিউজ

পাঁচ বছরে এতটাই সফল হব, যা মানুষ কল্পনাও করেনি |নিউজ

ডেস্ক রিপোর্টার :

‘আগামী পাঁচ বছরে দেশ এতটাই সফল হবে যে, দেশের মানুষ তা কল্পনাও করতে পারবে না’ বলে মন্তব্য করেছেন পরিকল্পনামন্ত্রী আ হ ম মুস্তফা কামাল।

বুধবার (২ ডিসেম্বর) বিকেলে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে এমন মন্তব্য করেন তিনি।

‘একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে দেশবাসীর প্রত্যাশার প্রতিফলন হয়েছে’ উল্লেখ করে মুস্তফা কামাল বলেন, ‘দেশের মানুষ সুস্পষ্ট রায় দিয়েছে, দেশটি কার হাতে পরিচালিত হবে। দেশ পরিচালিত করবে তারাই, যারা স্বাধীনতার পক্ষের শক্তি এবং যারা উন্নয়ন করবে। তারা এও বিশ্বাস করতেন, যে উন্নয়ন প্রকল্প আমাদের হাতে রয়েছে, এই সরকার পরিবর্তন হলে প্রকল্পগুলো আর বাস্তবায়িত হবে না। অতীত অবস্থা থেকে এটা আমরা বুঝতে পারি।’

পরিকল্পনামন্ত্রী আরও বলেন, ‘আমরা সুযোগ পেলাম, চলমান প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য। এই নির্বাচনের মাধ্যমে জনগণের প্রত্যাশার লেভেল অনেক বড় হয়েছে। তারা বিশ্বাস করে, আমরা পারব। আমি আপনাদের সামনে রেখে বলতে পারি, প্রধানমন্ত্রী কখনও ফেল (ব্যর্থ) করেননি। এবারও তিনি ফেল করবেন না। যত বড় প্রত্যাশার লেভেলই দেশের মানুষের হোক, তিনি সেই প্রত্যাশার লেভেল স্পর্শ করবেন। তার হাত ধরে আমরা আগামী পাঁচ বছরে এতটাই সফল হবো, যা এই দেশের মানুষ কল্পনা করেনি।’

উন্নয়নের কারণেই দেশের মানুষ আবারও তাদের নির্বাচিত করেছে উল্লেখ করে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘আমার একটি কথা সত্য হয়েছে, আপনারা অনেকে বিভিন্ন সভায় বলতেন, নির্বাচন আর উন্নয়ন এক জিনিস নয়। উন্নয়ন দিয়ে নির্বাচনের ফলাফল বোঝা যাবে না। আমি তখন বলেছিলাম, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সবচেয়ে সফল মানুষ এ দেশের। তিনি যে পরিমাণ উন্নয়ন করেছেন এ দেশের মানুষের জন্য সেই উন্নয়নের হাত ধরেই আমরা বিজয়ী হব। আমি এও বলেছিলাম, দেশের মানুষের জন্য তিনি এতটাই উন্নয়ন করেছেন, কেউ যদি ইচ্ছাও করে তার বিরুদ্ধে যাবে, তার বিরুদ্ধে অবস্থান নেবে, আমার বিরুদ্ধে অথবা মান্নান ভাইয়ের বিরুদ্ধে অবস্থান নেবে; তা নিতে পারবে না। ভোটকেন্দ্রে গিয়ে তারা আমাদেরই ভোট করবে (দেবে)। যদি ভোট করতে না চায়, তাহলে তাদের মন বলবে, এটা অন্যায় হয়েছে। তাদের হাত কাঁপবে। এটা কিন্তু প্রমাণ হয়েছে।’

এক প্রশ্নের জবাবে পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী যাকে যে মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব দেবেন, তাতেই আমরা খুশি। তিনি না দিলেও দেশের উন্নয়নে আমরা কাজ করব।’

অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান ও সাধারণ অর্থনীতি বিভাগের সদস্য (জ্যেষ্ঠ) সচিব ড. শামসুল আলমও এ সময় বক্তব্য রাখেন।

প্রদীপ দাস/এমএআর/জেআইএম

About admin

Check Also

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার ফলাফল কী প্রমাণ করে?

সারা দেশে যখন বিএনপির ভূমিলীন পরাজয় ঘটেছে তখন ব্রাহ্মণবাড়িয়া-২ আসনের ফল ভিন্ন বার্তা দেয়। এখানে …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *