ব’হুল আ’লো’চিত চট্ট’গ্রামে ” ট্রি “পল মা’র্ডার- ৮ আসামির যাব’জ্জীবন ৩জন এর মৃত্যুদণ্ড

ব’হুল আ’লো’চিত চট্ট’গ্রামে ” ট্রি “পল মা’র্ডার- ৮ আসামির যাব’জ্জীবন ৩জন এর মৃত্যুদণ্ড

২০০৩ সালে চট্টগ্রামের  আলোচিত ৩ মার্ডার মামলার চূড়া’ন্ত রায় ‘ঘোষণা করেছে’ন আপিল বিভা’গ। রায়ে বিচারিক আদালতে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত পাঁচ আসামির সাজা পাল্টে যাব’জ্জীবন কারাদণ্ড এবং যাবজ্জীবন সাজাপ্রা’প্ত ৮ আসা’মির মধ্যে তি’নজনের ‘সাজা বহাল’ রেখেছেন স”র্বোচ্চ আ’দা’লত।২৬’ অক্টোব’র প্রধা’ন বিচারপতি ‘সৈয়দ মাহ’মুদ হো’সেনসহ ৫ ‘বিচারপ’তির আ’পিল বেঞ্চ এ রা’য় ‘দেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল বিশ্বজিৎ দেবনাথ জানান,- ২০০৩ সালের ২৬ মে দিবালোকে তিনজনকে হত্যা করে আসামিরা। এ ঘটনায় বিচারিক আদালত পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ড এবং ৮ জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়। এরপর মামলাটি হাইকোর্টে এলে সবাইকে খালাস দিয়ে দেয়। পরে রাষ্ট্রপক্ষ থেকে হাইকোর্টের রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করা হয়। ওই আপিলে শুনানি নিয়ে আপিল বিভাগ আজকে চূড়ান্ত রায় ঘোষণা করেছেন।

 

মির্জাপুর ইউনিয়নের চারিয়া এলাকায় ওই সময় সন্ত্রাসীরা আবুল কাশেম, আবুল বশর ও বাদশা আলম নামে ৩ সহোদরকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে এবং গুলি করে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহতের ভাই কাজি মফজল মাস্টার ওই সময় ২২ জনকে আসামি করে মামলা করেন। পরে এ মামলায় বিচার চলাকালে একজন মারা গেলে আদালত বাকি ২১ জন থেকে ৫ জনকে ফাঁসিতে ঝুলিয়ে মৃত্যুদণ্ড কার্যকর, ৮ জনকে যাবজ্জীবন কারদণ্ড ও ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে ২ বছর কারাদণ্ড দেন চট্টগ্রাম আদালত। 

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net