আফগান মন্ত্রী যখন উবার চালক

আফগান মন্ত্রী যখন উবার চালক

গত বছর আগস্টে তালেবানের হাতে আফগানিস্তানের পতনের আগের দিন তৎকালীন প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানিকে ‘স্বাগত’ জানায় সংযুক্ত আরব আমিরাত। দেশটির রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে ১৬৯ মিলিয়ন নিয়ে পালানোর অভিযোগ রয়েছে তার বিরুদ্ধে। অথচ এই ঘটনার ছয় মাস পর একদা আশরাফ ঘানির অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করা খালিদ পায়েন্দা যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন ডিসিতে একজন উবার চালক।

২০২০ সালের শেষ দিকে কাবুলের একটি হাসপাতালে করোনায় মায়ের মৃত্যুর পর পায়েন্দা আফগানিস্তানের অর্থমন্ত্রী হন। ওয়াশিংটন পোস্টকে তিনি বলেছেন, না হলেই ভালো হতো।

তার কথায়, আমি অনেক নোংরামি দেখেছি এবং আমরা ব্যর্থ হয়েছি। এই ব্যর্থতার অংশ ছিলাম আমি। যখন মানুষের দুর্দশা দেখেন এবং সেজন্য নিজেকে দায়ী মনে হয়- তখন তা খুব কঠিন।
তালেবান আফগানিস্তান দখলের এক সপ্তাহ আগে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্ব থেকে পদত্যাগ করেন পায়েন্দা। ঘানির সঙ্গে সম্পর্কের অবনতি হলে তিনি এই পদক্ষেপ নেন। তার ভয় ছিল, প্রেসিডেন্ট হয়ত তাকে গ্রেফতার করতে পারেন। তখনই তিনি যুক্তরাষ্ট্রে পরিবারের কাছে চলে আসেন।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম ওয়াশিংটন পোস্টকে পায়েন্দা বলেন, আগামী দুই দিনে আমি যদি ৫০ ট্রিপ সম্পূর্ণ করতে পারি তাহলে ৯৫ ডলার বোনাস পাব।
৪০ বছর বয়সী এই পায়েন্দা এক সময় যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত ৬০০ কোটি ডলারের বাজেট তদারকি করেছেন। অথচ এই সপ্তাহে তিনি ছয় ঘণ্টা কাজ করে ১৫০ ডলারের সামান্য বেশি আয় করেছেন।

নিজের পরিবারের ভরণ-পোষণ করতে পারার জন্য পায়েন্দা কৃতজ্ঞতা জানিয়েছেন। কিন্তু বলেছেন, এই মুহূর্তে থাকার জন্য আমার কোনও জায়গা নেই। আমার এখানে থাকা উচিত না। এটি খুব শূন্য অনুভূতি।

সূত্র: দ্য গার্ডিয়ান

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net