ভাবির মামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি কারাগারে

ভাবির মামলায় ছাত্রলীগ সভাপতি কারাগারে

ভাবির দায়ের করা মামলায় ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি এসএম মাহবুব হোসাইনকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। মঙ্গলবার (১৫ মার্চ) দুপুর ১২টার দিকে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নারী ও শিশু ট্রাইব্যুনাল-২-এর বিচারক আলমগীর কবির এ নির্দেশ দেন। এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন আদালত পুলিশের পরিদর্শক কাজী মুহাম্মদ দিদারুল আলম।

আদালত ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, মাহবুরের বড় ভাই জাকির হোসেন সৌদি আরব প্রবাসী। জাকির বিদেশে চলে গেলে তার স্ত্রী রেহেনা আক্তারের ওপর প্রায়ই নির্যাতন চলতো। রেহেনার অভিযোগ, তাকে শ্বশুরবাড়ির কোনও ঘরই দিতেন না মাহবুব। পরে তিনি বাবার বাড়ি থেকে তিন লাখ টাকা এনে স্বামীর ভিটায় একটি ঘর নির্মাণ করে বসবাস শুরু করেন। একপর্যায়ে মাহবুব ও তার আরেক প্রবাসী ছোট ভাই মোস্তফা হোসাইন ঘরটি দখল করে নেন। পরে ২০২০ সালের ১ আগস্ট রেহেনা ও তার পাঁচ বছরের ছেলেকে মারধর করা হয়। এসব ঘটনায় ৪ আগস্ট রেহেনা বাদী হয়ে আদালতে মামলা দায়ের করেন। ২০২০ সালের ৬ নভেম্বর পুলিশ মাহবুবকে উপজেলার ভিটি দাউদপুরের গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করলে আদালতের নির্দেশে কারাগারে পাঠানো হয়। পরে তিনি জামিনে ছাড়া পান। তবে বিষয়টি পারিবারিকভাবে নিষ্পত্তি না হওয়ায় মামলা চলমান থাকে। মঙ্গলবার এই মামলার হাজিরা দিতে গেলে আদালত তাকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহাদাত হোসেন শোভন বলেন, ‘পারিবারিক মামলায় বিজয়নগর উপজেলা ছাত্রলীগ সভাপতি মাহবুবকে কারাগারে পাঠিয়েছেন আদালত। এর আগে আমরা বিষয়টি সামাজিকভাবে সমাধানের চেষ্টা করেছিলাম। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তা করা যায়নি।’

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net