মুখোমুখি সংঘর্ষ এড়ালো দুই বিমান, ভাগ্যক্রমে বাঁচলেন শতাধিক যাত্রী

মুখোমুখি সংঘর্ষ এড়ালো দুই বিমান, ভাগ্যক্রমে বাঁচলেন শতাধিক যাত্রী

সড়কপথে দুই যানের মুখোমুখি সংঘর্ষের খবর প্রায়ই শিরোনামে আসে। কিন্তু রানওয়েতে এয়ার ট্রাফিক কন্ট্রোল সময় হিসাবনিকাশ করেই বিমান উড্ডয়নের অনুমতি দেয় বলে এ ধরনের ঘটনা ঘটার নজির নেই। তবে বাস্তবে সেটাই ঘটতে যাচ্ছিল দুবাই বিমানবন্দরে। কিন্তু নেহায়েত ভাগ্যজোড়ে বড় ধরনের দুর্ঘটনা থেকে রক্ষা পেয়েছেন ভারতগামী দুই বিমানের যাত্রীরা।

ভারতীয় গণমাধ্যম এনডিটিভি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, দুবাই বিমানবন্দর থেকে ওড়ার সময়ই ভারতগামী বিমান দু’টির মধ্যে বড়সড় সংঘর্ষের ঘটনা ঘটার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছিল।  শেষ পর্যন্ত অবশ্য দুর্ঘটনা এড়ানো সম্ভব হয়।

এনডিটিভি জানায়, গত রোববার স্থানীয় সময় রাত ৯টা ৪৫ মিনিটে দুবাই থেকে হায়দ্রাবাদের উদ্দেশ্যে ছেড়ে যাওয়ার কথা ছিল এমিরেটস এয়ারলাইনসের ইকে-৫২৪ বিমানের। প্রায় একই সময়  এমিরেটস এয়ারলাইসের ইকে-৫৬৮ বিমানের দুবাই থেকে বেঙ্গালুরু রওনা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু ভুলবশত দু’টি বিমানই একই রানওয়েতে চলে আসে। এমিরেটসের সময় অনুযায়ী ওই দুই বিমানের উড্ডয়নের মধ্যে সময়ের ব্যবধান ছিল পাঁচ মিনিট।

এ ব্যাপারে অবহিত এক ব্যক্তি বার্তা সংস্থা এএনআইকে জানান, হায়দ্রাবাদগামী ইকে ৫২৪ বিমানটি দুবাই বিমানবন্দরের ৩০ আর রানওয়ে ধরে ওড়ার জন্য গতি বাড়াচ্ছিল। তখনই বিমান চালকরা ওই একই রানওয়ে ধরে অন্য একটি বিমানকে এগিয়ে আসতে দেখেন। সঙ্গে সঙ্গে বিমানটির গতি কমিয়ে দেওয়া হয়। রানওয়ের মধ্যে দিয়ে যাওয়া এন৪ ট্যাক্সি বেতে ঢুকে পড়ে বেঙ্গালুরুগামী অন্য বিমানটিকে রাস্তা করে দেয় হায়দ্রাবাদগামী বিমানটি।

পরে এয়ার ট্রাফিক কন্টোলের তত্ত্ববধানে হায়দ্রাবাদগামী বিমানটির উড্ডয়নের কয়েক মিনিট পর বেঙ্গালুরুগামী বিমানটি উড়ে যায়।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের বিমান পরিবহণ ব্যবস্থায় দুর্ঘটনার তদন্তের জন্য ভারপ্রাপ্ত সংস্থা এয়ার অ্যাক্সিডেন্ট ইনভেস্টিগেশন সেক্টর (এএআইএস) এ ব্যাপারে তদন্ত শুরু করেছে। এই ঘটনা ওই এয়ারলাইনসের নিরাপত্তার বড়সড় ঘাটতির বিষয়টি চোখে আঙুল দিয়ে দেখিয়ে দিচ্ছে।
এমিরেটস এয়ারলাইনসও বিষয়টি নিশ্চিত করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net