ছাত্রলীগ নেতার ইয়াবা কারবার: বাড়ি-গাড়ির সঙ্গে কিনেছেন সোয়েটার কারখানাও

ছাত্রলীগ নেতার ইয়াবা কারবার: বাড়ি-গাড়ির সঙ্গে কিনেছেন সোয়েটার কারখানাও

গাজীপুর জেলা ছাত্রলীগের বহিষ্কৃত সাংগঠনিক সম্পাদক জাহাঙ্গীর সরকার (২৭) দেড় বছর ধরে ইয়াবা কারবার করে কোটিপতি বনে যান। বানিয়েছেন দোতলা বাড়ি। কিনেছেন প্রাডো গাড়ি। ইজারা নিয়েছেন বাজার। নিজেদের বাড়িতে ভাড়ায় চলা একটি সোয়েটার কারখানাও কিনে নেন তিনি। ঢাকার উত্তরা থেকে ময়মনসিংহের ভালুকা পর্যন্ত তাঁর ইয়াবা কারবারের সিন্ডিকেট।

গত শনিবার চার সহযোগী ঢাকার গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) হাতে গ্রেপ্তারের পর তাঁর আরো এক ডজন সহযোগীর নাম জানা গেছে। এদের কয়েকজন মাদক কারবারি হিসেবে চিহ্নিত। এই কয়েকজনও কোটিপতি বনে গেছেন। স্থানীয় ও ডিবি পুলিশের সূত্রে এসব তথ্য জানা গেছে। তবে জাহাঙ্গীরের বাবা দাবি করছেন, পারিবারিক জমি বিক্রির টাকায় গাড়ি, বাড়ি ও কারখানা কিনেছেন জাহাঙ্গীর।

ডিবির যুগ্ম কমিশনার হারুন অর রশীদ গতকাল কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘ইয়াবার চালান ধরার পর জাহাঙ্গীরসহ যাদের নাম এসেছে, তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।’

শনিবার রাতে যাত্রাবাড়ী থানার গোলাপবাগ বিশ্বরোড থেকে একটি প্রাইভেট কারে ২৫ হাজার ইয়াবাসহ রুবেল ইসলাম, রাকিবুল হাসান, সূর্য বর্মণ শান্ত ও রনি আহম্মেদ নামে চারজনকে গ্রেপ্তার করে ঢাকার ডিবি। অভিযানের সময় গাড়ির পেছনের দরজা খুলে পালিয়ে যায় জাহাঙ্গীরের সহযোগী ফিরোজ নামের একজন। গ্রেপ্তারকৃতরা প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে জানায়, তারা কক্সবাজারের সীমান্তবর্তী এলাকা থেকে ইয়াবা এনে জাহাঙ্গীরের কাছে পৌঁছে দেয়। এরপর জাহাঙ্গীর সহযোগীদের মাধ্যমে তা বিক্রি করেন। উত্তর ঢাকা থেকে ময়মনসিংহের ভালুকা পর্যন্ত ইয়াবা কারবারে রয়েছে তাঁর আধিপত্য।

গ্রেপ্তারকৃত চারজনকে আদালতের নির্দেশে তিন দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ডিবি পুলিশ। ইয়াবা কারবারের জড়িত থাকার খবর পেয়ে গত রবিবার সন্ধ্যায় জাহাঙ্গীরকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ।

সূত্র জানায়, ফিরোজ ছাড়াও জাহাঙ্গীরের এখনো ধরা না পড়া ১৪ সহযোগী আছে। এরা হলো মুলাইদ এলাকার মনির, আকরাম, লিটন বেপারী, এনামুল মুন্সী, পিস্তল মাসুদ, শরীফ, আশরাফুল, টেপিরবাড়ী এলাকার মাজাহার, শাকিল সরকার, জুম্মন, মেহেদি সরকার, গোদারচালা এলাকার নাঈম, এমসি বাজার এলাকার সুমন বেপারী ও আসাদ। এদের মধ্যে জুম্মন মাদকসহ গ্রেপ্তার হয়ে জেল খেটেছে। সুমন বেপারীর বিরুদ্ধে মাদকের তিনটি মামলা আছে বলে জানা গেছে।

এলাকা সূত্রে জানা গেছে, গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার তেলিহাটী ইউনিয়নের গোদারচালা গ্রামের মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান জাহাঙ্গীর সরকার। তাঁর বাবা ইকবাল সরকার ওই ইউনিয়নের (২ নম্বর ওয়ার্ডের) দুই দফা মেম্বার ছিলেন। পঞ্চম ধাপে অনুষ্ঠেয় ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনেও মেম্বার পদে নির্বাচন করছেন তিনি। ইকবাল সরকারের দৃশ্যমান অন্য কোনো পেশা নেই। দুই ভাইয়ের মধ্যে জাহাঙ্গীর ছোট। বড় ভাই আলমগীর সরকারও মাদক কারবারে জড়িত বলে অভিযোগ করেছে এলাকাবাসী।

স্থানীয় ব্যক্তিদের ভাষ্য মতে, ২০১২ সালে তেলিহাটী ইউনিয়নের ২ নম্বর ওয়ার্ডের ছাত্রলীগ সভাপতি হন জাহাঙ্গীর। কয়েক বছর পর উপজেলা ছাত্রলীগের সদস্য হন। ২০১৬ সালে জেলা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক হন তিনি।

গত ৬ জুন ইয়াবার একটি চালান শ্রীপুরের এমসি বাজারে আসছে—এমন গোপন খবরে সেখানে অভিযান চালায় গাজীপুর জেলা ডিবি পুলিশ। জাহাঙ্গীর পালিয়ে গেলেও প্রায় ২০০ বোতল বিয়ারসহ গ্রেপ্তার করা হয় তাঁর বড় ভাই আলমগীরকে। ডিবির এসআই মোস্তাফিজুর রহমান কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘জাহাঙ্গীর অনেক আগে থেকেই ইয়াবা কারবারি। কিন্তু অনেক সোর্স লাগিয়েও ইয়াবাসহ তাকে ধরা যায়নি। সে সহযোগীদের হাত দিয়ে ইয়াবা কারবার করে।’

জাহাঙ্গীরের যত সম্পদ : এলাকাবাসী বলছে, দেড় বছর ধরে জাহাঙ্গীরের লাইফস্টাইল বদলে যায়। কয়েক বছর আগে মুলাইদ বারেকের মোড় এলাকায় তাঁদের তিনতলা ভবনে একটি সোয়েটার কারখানা ভাড়ায় চলছিল। নাম এসআর সোয়েটার। দেড় বছর আগে ওই কারখানার মালিকানা কিনে নেন জাহাঙ্গীর। বছরখানেক আগে এমসি বাজার এলাকায় জমি কিনে বানিয়েছেন দোতলা বাড়ি। একই সময়ে এমসি বাজার ইজারা নেন প্রায় ৮৪ লাখ টাকায়। এ ছাড়া দুই মাস আগে প্রাডো ব্র্যান্ডের একটি গাড়ি কেনেন। তাঁর আরো একটি প্রাইভেট কার আছে।

তবে জাহাঙ্গীর সরকারের বাবা ইকবাল সরকার কালের কণ্ঠকে বলেন, ‘আমার ছেলে ইয়াবা কারবার করে কি না আমি জানি না। তবে সোয়েটার কারখানা, বাড়ি আর গাড়ি আমার জমি বিক্রির টাকায় কিনেছে।’

ইয়াবা কারবার না করায় নির্যাতন : মুলাইদ এলাকার পোলট্রি ব্যবসায়ী সোহেল বলেন, ছয় মাস আগে জাহাঙ্গীর তাঁকে ইয়াবা সরবরাহের কাজে লাগাতে চান। তিনি রাজি হননি। এতে জাহাঙ্গীরের সহযোগীরা তাঁকে ধরে নিয়ে নির্যাতন চালায়।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net