প্রধানমন্ত্রীর ছেলেসহ মন্ত্রীদের পদত্যাগের হিড়িক

প্রধানমন্ত্রীর ছেলেসহ মন্ত্রীদের পদত্যাগের হিড়িক

ভারত মহাসাগরের দ্বীপরাষ্ট্র শ্রীলঙ্কা স্বাধীন হওয়ার পর এবারই সবচেয়ে বড় অর্থনৈতিক সংকটের মধ্য পড়েছে। দেশটির রাষ্ট্রপতি, গোতাবায়া রাজাপাকসে, বিক্ষোভকারীদের উপর জরুরি অবস্থা এবং পরে কারফিউ জারি করেন, সংকট মোকাবেলায় সরকারের ব্যর্থতার জন্য জনগন বিক্ষো/ভ শুরু করলে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফে/’সবুক ও টুই/টার বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। দেশের জনগন অর্থনেতিক অচলাবস্থা জন্য সরকারে ব্যর্থতাকে দায়ি করে রাস্তায় নেমে আন্দোলন শুরু করে। দেশের এই অচলাবস্থা দেখে দেশের ২৬ জন মন্ত্রী পদত্যাগ করেছেন।

রাষ্ট্রপতি গোতাবায়া রাজাপাকসে এবং প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে ছাড়া মন্ত্রিসভার ২৬ সদস্য রবিবার রাতে এক বৈঠকের পর তাদের পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

বিবিসির এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, শ্রীলঙ্কার শিক্ষামন্ত্রী দীনেশ গুণবর্ধন গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।
প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপাকসে এবং প্রধানমন্ত্রী মাহিন্দা রাজাপাকসে তাদের পদত্যাগপত্র জমা না দিলেও প্রধানমন্ত্রীর ছেলে নমাল রাজাপাকসে পদত্যাগ করেছেন। একটি টুইট বার্তায় তিনি বলেন, তিনি আশা করেন এটি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীকে জনগণ ও সরকারের জন্য স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠার সিদ্ধান্ত নিতে সাহায্য করবে।

এদিকে, সরকারবিরোধী বিক্ষোভ দমনে শ্রীলঙ্কার সেনারা রাস্তায় নেমেছে। বিক্ষোভকারীরা সরকার কর্তৃক আরোপিত ৩৬ ঘন্টার কারফিউ উপেক্ষা করেও বিক্ষো/’ভ করেছে। বি’ক্ষো/ভ দমনে সরকার সোশ্যাল মিডিয়াও বন্ধ করে দিয়েছে।

দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটি বর্তমানে তীব্র খাদ্য, জ্বালানি ও অন্যান্য পণ্যদ্রব্যের সংকট দেখা দিয়েছে। রেকর্ড পরিমান মুদ্রাস্ফীতি এবং বিদ্যুৎ বিভ্রাট তো রয়েছে । ১৯৪৮ সালে ব্রিটিশদের কাছ থেকে স্বাধীন হওয়ার পর এর আগে এমন সংকটে আর পড়েনি দেশটি।

বৃহস্পতিবার দেশটির রাজধানী কলম্বোতে রাষ্ট্রপতির বাসভবনের সামনে বি’ক্ষো/ভ শুরু হয়, এই দাবিতে যে সরকার সংকট মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়েছে। পরের দিন, বি’ক্ষো/ভ থামাতে রাষ্ট্রপতি গোতাবায়া রাজাপাকসে জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেন। পরে শনিবার, সরকার দেশব্যাপী ৩৬ ঘন্টার কারফিউ জারি করে।

প্রসঙ্গত, বিশ্বব্যাপি ছড়িয়ে পড়া রোগের কারনে বিশ্বব্যাপী অর্থনৈতিক সংকটের সৃষ্টি হয়েছে। এই ধরনের পরিস্থিতির কারনে দক্ষিণ এশিয়ার দেশ শ্রীলঙ্কায় অর্থনৈতিক অচলাবস্থার সৃষ্টি হয়েছে। দেশটিতে খাদ্য সহ নিত্যপ্রয়োজনী সকল পন্যদ্রব্যে তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। এই সংকটের জন্য সরকারের ব্যর্থতাকে দায়ী করে বি’ক্ষো/ভ শুরু করেছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net