সৌদি যুবরাজ এর দাদু কে হত্যার বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ্যে এনেছেন সাদ আলজাবরি নামের এক প্রাক্তন সৌদি গোয়েন্দা

সৌদি যুবরাজ এর দাদু কে হত্যার বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ্যে এনেছেন সাদ আলজাবরি নামের এক প্রাক্তন সৌদি গোয়েন্দা

সাংবাদিক “জামাল খাশোগ্গিকে” হত্যার অভি’যোগ রয়েছে সৌদি আরবের যুবরাজ মহম্মদ বিন সল;মনের বিরুদ্ধে”।আন্তর্জাতিক মঞ্চে রীতিমতো চাপের মুখে পড়তে হচ্ছে তাঁকে। সময়ে প্রকাশ্যে এল আরও এক বিস্ফোরক তথ্য। সৌদি গোয়েন্দা আধিকারিক দাবি করেছেন, সৌদি’ আরবের রাজা আবদুল্লাকে “হত্যার ষড়যন্ত্র রচনা করেছিলেন সলমন”

২০১৫ সালে মৃত্যু হয় সৌদি’ আরবের রাজা আব”দুল্লার। তক’ন সিংহাসনে বসেন তাঁর সৎভাই সলমন বিন আবদুল্লাজিজ। আর ইনিই হচ্ছেন সৌদি যুবরাজ মহম্মদ বিন” সলমনের বাবা”। জানা গিয়েছে, –সৌদি রাজা আ’বদুল্লাকে ২০’১৪ সালে হ’ত্যার পরিকল্প”না করেছিলেন স্বয়ং মহম্মদ বিন সলমন। আর এই বিস্ফোরক তথ্য প্রকাশ্যে এনেছেন সাদ আলজাবরি নামের এক প্রাক্তন সৌদি গোয়েন্দা আধিকারিক। ৬২ বছরের ওই গোয়ে’ন্দা কর্তা বর্তমানে কানাডায় নির্বাসনে রয়েছেন। একটি মার্কিন টি’ভি চ্যা’নেলের জনপ্রিয় শোয়ে দেওয়া সাক্ষাৎকারে সাদ স্পষ্ট ভাষায় দাবি করেন,- যুবরাজ সলমন তখন বলেছিলেন, রাশিয়া থেকে এমন বিষাক্ত আংটি তিনি আনিয়ে’ছেন, -যেটি পরে আবদুল্লার সঙ্গে করমর্দন করলেই মৃত্যু হবে তৎকালীন সৌদি রাজার।

দিকে–, সলম’নের রক্তচাপ বাড়িয়ে, ‘-অবদুল্লার বিরুদ্ধে চক্রান্তের একটি ভিডিও তাঁর কাছে রয়েছে বলে দাবি করেছেন সাদ। তবে মার্কিন টিভি’ শোয়ে সেই ভিডিও প্রকাশ করেননি তিনি। তাঁর দাবি, তাঁকেও যে কোনও দিন মেরে ফেলতে পারেন মহম্মদ বিন সলমন। তাঁ’র দুই সাবালক সন্তানকে সৌদি সরকা’র বন্দি করে রেখেছে বলে দাবি সাদের। যাতে সাদ কানাডা ছেড়ে সৌদি আরবে ফিরতে বাধ্য হন। তবে এই বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া দেয়নি রিয়াধ।রাজনৈ’তিক’ বিরো;ধীদের পথ এথেকে সরিয়ে দেওয়ার অভিযোগ রয়েছে যুবরাজ সলমনের বিরুদ্ধে। এছাড়া, ওয়াশিং’টন ‘পোস্ট’-এর সাংবাদিক জামাল খাশোগ্গিকে হত্যার নির্দে’শও দিয়েছি’লেন তিনি বলে দাবি করেছে আমেরিকা। সৌদি রাজপরিবারের কট্টর সমালোচক খাশোগ্গিকে রাজমহলের অন্দরের একাধিক কে’চ্ছা ফাঁস করেছিলেন। ২০১৮ সালের ২ অ’ক্টোবর ইস্তা’নবু’লের সৌদি দূতাবাসে খুন হন সাংবাদিক জামাল খাশোগ্গি। দ্বিতীয়বার বিয়ের জন্য প্রয়োজনীয় নথি সংগ্রহ করতে সেখানে গিয়েছিলেন’ তিনি’। সৌদি রাজ পরিবারে’র পাশাপা’শি সে’ দেশের যু’বরাজ মহম্মদ বিন স’লমনের কড়া সমালোচ”ক হিসেবে পরিচিত খাশোগ্গির খুনের পরেই সরব হয় তুরস্ক-সহ একাধিক দেশ। প্রাথমিকভাবে যাবতীয়’ অভিযোগ অস্বীকার করে রিয়াধ। পরে অবশ্য বলা হয়, গুপ্ত ঘাতকের হাতে খুন হয়েছেন খাশোগ্গি। এই ঘটনার তদন্তে নেমে সন্দে’হভাজন প্রায় ২৪ জনকে আটক করে ‘সৌদি সরকার। তাদের মধ্যে পাঁচজনকে মৃত্যুদণ্ডও ‘দেওয়া হয়েছে বলেও জানানো হয়। যদিও’ এই ঘটনার সঙ্গে ম’হম্মদ বিন সলমনের \কোনও যোগ নেই বলেও সরকারিভাবে জা’নায় সৌদি আরব

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net