খবরটি দেখে আমি অসুস্থ হয়ে পড়েছি, এমন অত্যাচারের মানে হয় না : চিত্রনায়িকা পরীমনি

খবরটি দেখে আমি অসুস্থ হয়ে পড়েছি, এমন অত্যাচারের মানে হয় না : চিত্রনায়িকা পরীমনি

বাংলাদেশ চলচ্চিত্রের একজন আলোচিত চিত্রনায়িকা হলেন পরীমনি। এই চিত্রনায়িকা কে নিয়ে ইতিমধ্যে দেশে কয়েকবার ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা হয়েছে। এমনকি তার ছবি ও ভিডিও নিয়েও নানা রকম সমালোচনা হয়েছে। তবে এবার তার সকল খারাপ ছবি ও ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে সরিয়ে নেওয়ার জন্য আইনি নোটিশ দেওয়া হয়েছে। আর এবার এই বিষয়ে এই চিত্রনায়িকা বেশ কিছু কথা বলেছেন।
পরীমণিকে আইনি নোটিশ পাঠানো হয়েছে। তাতে বলা হয়েছে, আগামী ৩০ দিনের মধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে তার অ”শ্লী”ল ছবি ও ভিডিও সরাতে হবে। এই নোটিশ পাঠিয়েছেন যৌথভাবে বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী খন্দকার হাসান শাহরিয়ার এবং ঢাকা জজ কোর্টের আইনজীবী ইসমাতুল্লাহ লাকী তালুকদার।

নোটিশে বলা হয়েছে, অ”শ্লী”ল ছবি ও ভিডিও অপসারণের জন্য আগামী ৩০ দিনের মধ্যে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করার পাশাপাশি ভবিষ্যতে সব ধরনের অ”শ্লী”ল সংলাপ, অভিনয়, অ’ঙ্গ’ভ’ঙ্গি, ন”গ্ন বা অ”র্ধ”ন”গ্ন নৃ’ত্য যা চলচ্চিত্র, ভিডিও চিত্র, অডিও ভিজ্যুয়াল চিত্র, স্থির চিত্র, গ্রাফিকস বা অন্য কোনো উপায়ে ধারণ করা ও প্রদর্শনযোগ্য এবং যার কোনো শৈল্পিক বা শিক্ষাগত মূল্য নেই, সেগুলো প্রদর্শন করা থেকে সম্পূর্ণরূপে বিরত থাকতে।

এদিকে পরীমণি জানালেন, তার হাতে এখনো নোটিশ আসেনি। তবে তিনি গণমাধ্যম থেকে খবরটি জানতে পেরেছেন। আর এ খবর পেয়েই তিনি অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। পরীমণি গণমাধ্যমকে বলেন, ‘আমি এখনো নোটিশ হাতে পাইনি। পাওয়ার পর এ নিয়ে কথা বলতে পারব। এর আগে আদালত থেকে আমাকে যখন বলা হয়েছিল, তখন ১ ঘণ্টার মধ্যে ছবিগুলো সরিয়ে ফেলি। এখন যে ভিডিওর কথা বলা হয়েছে, সেগুলো আমি শেয়ার করিনি। বরং আমার ব্যক্তিগত ভিডিও অন্য কেউ ফেসবুকে দিয়েছে। নোটিশ হাতে না পেলেও বিভিন্ন গণমাধ্যমে আজকের খবরটি পেয়েছি। দেখে আমি অসুস্থ হয়ে পড়েছি। এমন অত্যাচারের মানে হয় না।’

পরীমণি আরও বলেন, ‘আমার ফেসবুক তো সবার জন্য খোলা। একটু দেখে নিন আর তারপর বলুন আমার পেজে ঠিক কোন ভিডিওটা অশ্লীল। আমার পেজে এমন কোনও ভিডিও নেই যেটা সরাতে হবে। যদি সরাতেই হয় তাহলে আমাকে অপমান করে যারা ভিডিও বানিয়েছে, তাদের সরাতে হবে। ফেসবুক সম্পর্কে আগে তো জানতে হবে তাদের।

উল্লেখ্য, গত কয়েক মাস ধরে এই চিত্রনায়িকা কে নিয়ে দেশে বেশ আলোচনা সমালোচনা চলছে। তাকে তার বাসা থেকে অবৈধ জিনিসের বোতল সহ গ্রেফতার করা হয়। এরপর তিনি কয়েক সপ্তাহ কারাগারে ছিলেন। তিনি জামিনে বের হওয়ার পরও তাকে নিয়ে বেশ আলোচনা শুরু হয়। জামিনের বের হওয়ার পরই তিনি সিনেমার কাজ নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন। তার সকল খারাপ ছবি ও ভিডিও সরাতে বলে আইনি নোটিশ দেওয়া হয়েছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net