প্রতিশোধ নিতে 22″কিলোমিটার “‘পথ পেরোল বাঁদর- আতঙ্কে যুবক

প্রতিশোধ নিতে 22″কিলোমিটার “‘পথ পেরোল বাঁদর- আতঙ্কে যুবক

বাদর এর বাঁদরামির কথা মাঝে মধ্যেই শোনা যায়৷ কিন্তু তাদের  বুদ্দি নেহাত কম নয়৷ কারও উপরে প্রতিশোধ নিতে কোনও বাঁদর ২২কিলোমিটার পথ উজিয়ে আসবে! এমন ঘটনার কথা সচরাচর শোনা যায় না৷ বাস্তবে অবশ্য এমনটাই ঘটিয়ে ফেলেছে এক বাঁদর৷ আর তার ভয়ে এখন গোপন ডেরায় লুকিয়ে থাকতে বাধ্য হচ্ছেন এক যুবক কে।

 

ঘটনাটি ঘটেছে  ভারত এর কর্ণাটকের  চিক্কামাগালুর জেলার কোট্টিগেহারা গ্রামে৷ ঘটনার সূত্রপাত গত ১৬ সেপ্টেম্বর! জানা গিয়েছে  একটি পুরুষ বাঁদর কয়েকদিন ধরেই গ্রামে ঢুকে উপদ্রব চালাচ্ছিল৷ গ্রামবাসীদের হাত থেকে খাবারের প্যাকেট কেড়ে নিচ্ছিল সে৷ প্রথমে বাঁদরের বাঁদরামিকে সেভাবে গুরুত্ব দেননি স্থানীয়রা৷ কিন্তু গ্রামের একটি স্কুল খুলতেই সেখানে গিয়েও হাজির হয় ওই বাঁদরটি৷ বাঁদরের উপদ্রবে ভয় পেয়ে যায় স্কুল পড়ুয়ারা৷ এর পরই অভিযোগ পেয়ে বাঁদরটিকে ধরতে হাজির হয় বন দফতরের একটি দল৷যদিও বাঁদরটিকে ধরা সহজ হয়নি৷ বাধ্য হয়ে স্থানীয় দু’ জন অটোচালক এবং কয়েকজন বাসিন্দার সাহায্য নেন বন দফতরের কর্মীরা৷ বাঁদরটিকে তাড়া করে একদিকে নিয়ে যাওয়ার জন্য স্থানীয়দের পরামর্শ দেয় তাঁরা- যাতে বাঁদরটিকে ধরা সহজ হয়৷

 

 

 

 

এতে অবশ্য হিতে বিপরীত হয়৷ জগদীশ বি বি নামে স্থানীয় এক অটোচালকও বাঁদরটিকে ধরতে বন দফতরকে সাহায্য করতে যান৷ কিন্তু আচমকাই বাঁদরটি তাঁকে আক্রমণ করে৷ জগদীশের হাত সহ শরীরের বিভিন্ন জায়গায় আঁচড়ে, কামড়ে দেয় সে৷ ভয় পেয়ে পালিয়ে যান জগদীশ৷কিন্তু তাতেও রাগ কমেনি ওই বাঁদরের৷ জগদীশের উপরে হামলা চালাতে তার অটোর মধ্যেও লুকিয়ে থাকত সে৷ সুযোগ মতো হামলা চালাতো ওই যুবকের উপরে৷ শুধু তাই নয়, জগদীশের অটোর সিটও ছিঁড়ে দেয় ওই বাঁদরটি৷আতঙ্কিত জগদীশ বলেন,-ওই বাঁদরটা পাগলের মতো আমাকে তাড়া করছিল৷ আমি যেখানেই যেতাম

 

ও হাজির হয়ে যেত৷ আমার হাত এতটাই ক্ষতিগ্রস্ত যে আমি অটো চালাতে পারছি না৷ অথচ এটাই আমার উপার্জনের একমাত্র পথ৷ ভয়ে বাড়িতেও যেতে পারছি না, পাছে বাঁদরটি সেখানেও হাজির হয়! বাড়িতে আমার ছোট ছোট ছেলেমেয়ে রয়েছে, তাদের উপরে আক্রমণ করলে কী হবে?এর পরে অবশ্য বন দফতরের হাতে ধরা পড়ে বাঁদরটি৷ তিরিশ জন মিলে প্রায় তিন ঘণ্টার চেষ্টায় বাঁদরটিকে ধরেন৷ হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন গ্রামবাসীরাও৷ কোট্টিগেহারা থেকে প্রায় বাইশ কিলোমিটার দূরে বালুর জঙ্গলে বাঁদরটিকে ছেডে দিয়ে আসেন বন দফতরের কর্মীরা৷কিন্তু বাঁদরটির মাথায় অন্য কিছু ঘুরছিল৷ এক সপ্তাহের মধ্যেই বাইশ কিলোমিটার পথ পেরিয়ে কোট্টিগেহারাতে হাজির হয় সে৷ শুনতে অবিশ্বাস্য ঠেকলেও বুদ্ধি করে কোট্টিগেহারার দিকে আসা একটি ট্রাকের মাথায় চড়ে বসে সে

বাঁদরটিকে বন দফতরের যে দলটি ধরেছিল, তাঁর অন্যতম একজন সদস্য বলেন-‘একজন মানুষের প্রতিই বাঁদরটি এমন আচরণ করছে কেন তা আমাদের কাছেও স্পষ্ট নয়৷ হতে পারে অতীতে হয়তো এই বাঁদরটিকে ওই ব্যক্তি কোনও ভাবে আঘাত করেছিলেন৷ কিন্তু কোনও বাঁদর এভাবে একজন মানুষকেই বেছে বেছে আক্রমণ করছে, এই ঘটনা আমরা প্রথম দেখছি৷

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published.

© All rights reserved © 2017 RTNBD.net